হজের খরচ কমাল সৌদি আরব

34

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

নিজ দেশের নাগরিক ও প্রবাসীদের জন্য রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) হজের নিবন্ধন প্রক্রিয়া শুরু করেছে সৌদি আরব। দেশটির হজ ও ওমরাহ বিষয়ক মন্ত্রণালয় জানিয়েছে যে, আসন্ন হজের জন্য দেশীয় হজযাত্রী, নাগরিক এবং প্রবাসীদের নিবন্ধনের জন্য ইলেকট্রনিক ট্র্যাক চালু করতে প্রস্তুত রয়েছে তারা।

সংযুক্ত আরব আমিরাত ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম গালফ নিউজ এক প্রতিবেদনে খবরটি দিয়েছে। বলা হয়েছে, সৌদি নাগরিক ও প্রবাসীদের জন্য এবার হজের খরচ কমানো হয়েছে। এ ছাড়া, হজযাত্রীদের জন্য দ্রুত এবং মসৃণ নিবন্ধন নিশ্চিত করতে মন্ত্রণালয় তার ওয়েবসাইট এবং নুসুক অ্যাপের মাধ্যমে নিবন্ধন সংক্রান্ত সমস্ত প্রক্রিয়া চূড়ান্ত করেছে।

এবার অভ্যন্তরীণ হাজিরা চারটি প্যাকেজ থেকে বেছে নিতে পারবেন। এর মধ্যে একটি হচ্ছে কম খরচের প্যাকেজ। এ বছর প্যাকেজটির মূল্য কমিয়ে করা হয়েছে ৩ হাজার ১৪৫ সৌদি রিয়াল—যা বাংলাদেশি অর্থে ৯২ হাজার টাকা।

একইভাবে, আল মাশায়ের ট্রেন সার্ভিসের মাধ্যমে পবিত্র স্থানগুলোতে ভ্রমণের ভাড়া ৪০০ রিয়াল থেকে ৩০০ রিয়াল করা হয়েছে বলে জানায় গালফ নিউজ। তবে এ বিষয়ে এখনো হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয়ের নিশ্চয়তা পাওয়া যায়নি।

হাজিদের পবিত্র স্থানগুলোয় ভ্রমণের জন্য ২০১০ সাল থেকে চালু রয়েছে আল মাশায়ের ট্রেন সার্ভিস। এই সার্ভিসের অধীনে ট্রেনগুলো মিনা, আরাফাত এবং মুজদালিফাহর ৯টি স্টেশনের মধ্যে চলাচল করে। শাটল ট্রেন পরিষেবাটি সৌদি আরবের পবিত্র শহর মক্কাকে রাজ্যের অন্যান্য পবিত্র স্থানগুলোর সঙ্গে যুক্ত করেছে।

এই ট্রেনের শেষ স্টেশনটি মিনার জামারাত ব্রিজের কাছে অবস্থিত। এখানেই হাজিরা প্রতি বছর শয়তানকে পাথর ছুড়ে মারার প্রতীকী অনুষ্ঠান পালন করেন।

আগামী জুনে হজের নতুন মৌসুম শুরু হবে। তবে এবার আগেভাগেই নতুন কৌশলের অধীনে প্রস্তুতি শুরু করেছে সৌদি আরব। গত বছর বিশ্বের প্রায় ১৮ লাখ মুসল্লি হজ পালন করেছিলেন। করোনা মহামারির আগের সময়ের সঙ্গে অনেকটাই মিলে গেছে গত বছরের হজ পালনকারীর সংখ্যা।

হজযাত্রীদের জন্য সুখবর, সৌদি আরবের সব ভিসা মিলবে এক প্ল্যাটফর্মেহজযাত্রীদের জন্য সুখবর, সৌদি আরবের সব ভিসা মিলবে এক প্ল্যাটফর্মে সৌদি আরব ইতোমধ্যেই চলতি বছরের হজের নিয়ম নির্ধারণ করেছে। সে অনুসারে, পবিত্র স্থানগুলোতে দেশগুলোর জন্য কোনো নির্দিষ্ট স্থান বরাদ্দ করা হবে না। এর পরিবর্তে বলা হয়েছে যে, নিবন্ধন প্রক্রিয়া চূড়ান্ত করার সময়ের ওপর নির্ভর করে বিভিন্ন দেশের স্থান নির্ধারিত হবে। যেসব দেশ আগে নিবন্ধন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করবে সেসব দেশ অগ্রাধিকার ভিত্তিতে স্থান বরাদ্দ পাবে।

পূর্বের খবরসৈকতে বিমানের ধাক্কায় নিহত ১
পরবর্তি খবরপারফরম্যান্সের ভিত্তিতে ফেডারেশনের মূল্যায়ন করবেন মন্ত্রী