আজ থেকে স্টাইকিং ফোর্স হিসেবে সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েন করা হচ্ছে

107
ঢাকাঃ আজ থেকে দেশের আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে সারাদেশে সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের মোতায়েন করা হচ্ছে। অবশেষে আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে বুধবার (৩ জানুয়ারি) থেকে সারাদেশে স্টাইকিং ফোর্স হিসেবেসশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের মোতায়েন করা হবে। স্থানীয় বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তা করতে সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের মোতায়েন করা হবে বলে জানা গেছে।

সংবিধানের ‘ইন এইড টু দ্য সিভিল পাওয়ার’-এর ১২৬ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েন করা হচ্ছে। মঙ্গলবার (২ জানুয়ারি) আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে, এ কথা জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, নির্বাচনের আগে, পরে ও পরে শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষায় আগামী ৩ থেকে ১০ জানুয়ারি পর্যন্ত সারাদেশে নির্বাচন কমিশন (ইসি) ও স্থানীয় বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তা দেবে সশস্ত্র বাহিনী।

সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা, প্রতিটি জেলা, উপজেলা ও মহানগরী এলাকার মোড়ে এবং অন্যান্য সুবিধাজনক স্থানে অবস্থান করবে।

সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তাদের অনুরোধে এবং স্টেকহোল্ডারদের সঙ্গে সমন্বয়ের মাধ্যমে, সংশ্লিষ্ট এলাকায় তাদের মোতায়নের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছে আইএসপিআর।

দেশের ৬২টি জেলায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সদস্য নিয়োগ করা হচ্ছে। বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) দায়িত্ব পালন করবে ৪৫টি উপজেলায়।

বিজিবি ও কোস্টগার্ড এর সঙ্গে সমন্বয় করে সেনাবাহিনী যথাক্রমে ৪৭ টি সীমান্তবর্তী উপজেলা ও ৪টি উপকূলীয় উপজেলায় দায়িত্ব পালন করবে।

ভোলা ও বরগুনা এবং উপকূলীয় আরো ১৭ টি উপজেলায় নৌ-বাহিনীর সদস্যরা নিয়োজিত থাকবে। পার্বত্য প্রত্যন্ত অঞ্চলের ভোট কেন্দ্রে হেলিকপ্টার সহায়তা দেবে বাংলাদেশ বিমান বাহিনী (বিএএফ)।

এছাড়া, নির্বাচনী সহায়তা প্রদানের জন্য বিমান বাহিনীর পর্যাপ্ত সংখ্যক হেলিকপ্টার প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

সশস্ত্র বাহিনী বিভাগে, বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, বিভাগ ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে একটি সেল গঠন করা হয়েছে; যা আগামী ১০ জানুয়ারি পর্যন্ত কার্যকর থাকবে।

রাষ্ট্রপতির সম্মতি

এর আগে, গত ১৭ ডিসেম্বর বাংলাদেশের আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করতে, সেনা মোতায়ন করার বিষয়ে সম্মতি প্রদান করেন রাষ্ট্রপতি মোঃ সাহাবুদ্দিন।

ওই দিন সকালে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাৎ করে সেনা মোতায়নের অনুরোধ জানাান। তার অনুরোধে, সেনা মোতায়ন করার বিষয়ে সম্মতি দেন রাষ্ট্রপতি সাহাবুদ্দিন।

পূর্বের খবরনাশকতাকারীদের তথ্য দিলে লাখ টাকা পুরস্কার: আইজিপি
পরবর্তি খবরএখন প্রশ্ন একটাই ভোটের মাঠে বিরোধী দল কে?