যুব ও ক্রীড়ামন্ত্রী নাজমুল হাসান পাপন সঙ্গে মালয়েশিয়ার হাইকমিশনারের সাক্ষাৎ

31

অনলাইন ডেস্ক:

যুব ও ক্রীড়ামন্ত্রী নাজমুল হাসানের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন মালয়েশিয়ার হাইকমিশনার হাজনাহ মোহাম্মদ হাশিম। বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সচিবালয়ে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রীর অফিস কক্ষে সাক্ষাৎ করেন।

এ সময় তিনি বাংলাদেশ সরকারের যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করায় যুব ও ক্রীড়ামন্ত্রী নাজমুল হাসানকে আন্তরিক অভিনন্দন জানান।

যুব ও ক্রীড়ামন্ত্রী মালয়েশিয়ার হাই কমিশনারকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, মালয়েশিয়ার সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক দীর্ঘদিনের ও বহুমাত্রিক। স্বাধীনতার পরপরই মালয়েশিয়া বাংলাদেশকে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দেয়। তাছাড়া দেশটি বাংলাদেশের জনশক্তি রফতানির একটি বড় বাজার।

আমরা প্রতিবছর যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর থেকে প্রায় ৩ লাখ তরুণকে আধুনিক ও কারিগরি বিভিন্ন প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে দক্ষ মানবসম্পদে রূপান্তর করছি।

এ সময় মন্ত্রী বাংলাদেশ থেকে এ সকল দক্ষ ও প্রশিক্ষিত জনগোষ্ঠীকে মালয়েশিয়ায় কর্মসংস্থান সৃষ্টির আহ্বান জানিয়ে বলেন, আমাদের তরুণরা অত্যন্ত মেধাবী ও সম্ভাবনাময়।

তারা তথ্য ও প্রযুক্তিতেও অত্যন্ত দক্ষ। তারা মালয়েশিয়ায় কাজের সুযোগ পেলে উভয় দেশই উপকৃত হবে। এছাড়াও ক্রীড়ার উন্নয়নেও সম অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে উভয় দেশ যৌথভাবে কাজ করতে পারে।

মন্ত্রীর এ সকল প্রস্তাবনাকে অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনার আশ্বাস দেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মালয়েশিয়ার হাইকমিশনার। তিনি বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন যুব ও ক্রীড়ার উন্নয়নে বিশ্বে এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত।

মালয়েশিয়া সরকারও বাংলাদেশের সাথে শিক্ষা, স্বাস্থ্য, বাণিজ্য, অবকাঠামো উন্নয়ন এর পাশাপাশি যুব ও ক্রীড়ার সাথে কাজ করতে আগ্রহী। এ সকল সহযোগিতার মাধ্যমে দু’দেশের মধ্যেকার সম্পর্ক অনন্য উচ্চতায় পৌঁছে যাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

সাক্ষাতকারে যুব ও ক্রীড়া সচিব ড. মহিউদ্দীন আহমেদ সহ যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দসহ মালয়েশিয়ার হাইকমিশনের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

পূর্বের খবরএবার সোনার দিয়ে তৈরি করলো সাইকেল!
পরবর্তি খবরনিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করতে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে :খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার