যুক্তরাষ্ট্র ও ভারত আবার বিপরীতমুখী অবস্থানে বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে

81

নিজস্ব প্রতিবেদক ঃ  আগামী ৭ জানুয়ারি বাংলাদেশের জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচন নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে আন্তর্জাতিক মহলে নানা রকম মেরুকরণ চলছিল। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ পশ্চিমা কয়েকটি দেশ যেমন বাংলাদেশে অবাধ, নিরপেক্ষ অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের জন্য চাপ দিচ্ছিল তেমনই ভারত, চীন, রাশিয়া সহ কয়েকটি দেশ বাংলাদেশের নির্বাচনকে সম্পূর্ণ অভ্যন্তরীণ বিষয় হিসেবে অভিহিত করেছিল এবং এই নির্বাচনে পশ্চিমাদের চাপের ব্যাপারে নেতিবাচক মনোভাব পোষণ করেছিল। ভারত অবশ্য প্রকাশ্যে কোন পশ্চিমা দেশের অবস্থানের সমালোচনা করেনি। কিন্তু ভারতই বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে সবচেয়ে বেশি কূটনৈতিক তৎপরতা চালিয়েছে।

ভারত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান পরিবর্তনের জন্য একাধিক কূটনৈতিক উদ্যোগ গ্রহণ করে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গিয়ে জো বাইডেনের সঙ্গে বাংলাদেশের নির্বাচন প্রসঙ্গ নিয়ে কথা বলেন। ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করও মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্থনি ব্লিঙ্কেনের সঙ্গে বাংলাদেশের নির্বাচন বিষয়ে আলাপ আলোচনা করেছেন। এই সমস্ত আলাপ আলোচনার ফলেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তার পূর্ব অবস্থান থেকে সরে এসেছে বলে কোনো কোনো কূটনীতিকরা মনে করেন। কিন্তু এখন যখন নির্বাচনের সময় ঘনিয়ে আসছে তখন ভারত এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থানের বৈপরীত্য লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

 

পূর্বের খবরনিজ দলের স্বতন্ত্র ও বিদ্রোহীদের আতঙ্কে আওয়ামী লীগের নৌকা
পরবর্তি খবরআজ ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস