ভিসামুক্ত প্রবেশাধিকার দিচ্ছে চীন-থাইল্যান্ড

38
新华社照片,曼谷,2023年9月13日 (国际·图文互动)(5)泰国宣布对中国游客实行约5个月免签 泰国总理赛塔·他威信9月13日宣布,自9月25日起泰国对中国游客实行免签制度,为期约5个月。赛塔当日在内阁会议后对媒体表示,泰国将从本月25日起至2024年2月29日对中国游客免签。 这是6月15日,游客在泰国曼谷大王宫景区拍照。 新华社记者 王腾 摄

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

একে অপরকে স্থায়ীভাবে ভিসামুক্ত প্রবেশাধিকার দিতে চলেছে চীন ও থাইল্যান্ড। আগামী মার্চ মাস থেকেই এই সুবিধা পাবেন দুই দেশের নাগরিকেরা। থাই প্রধানমন্ত্রী স্রেথা থাভিসিন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পর্যটক টানতে গত সেপ্টেম্বরে চীনা নাগরিকদের থাইল্যান্ডে প্রবেশে ভিসার বাধ্যবাধকতা বাতিল করেছিল থাই কর্তৃপক্ষ। তাদের এই সিদ্ধান্তে ব্যাপক সাড়া দেন চীনা পর্যটকেরা।

ভিসামুক্ত প্রবেশাধিকার পাওয়ার প্রথম দুই দিনেই দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশটিতে প্রবেশ করেন ২২ হাজারের বেশি চীনা পর্যটক।

মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে থাই প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, এখন আমরা সীমান্ত খুলে দিতে এবং পারস্পরিকভাবে উভয় দেশের পর্যটকদের ভালো যত্ন নিতে প্রস্তুত।

এই সিদ্ধান্ত চীন-থাইল্যান্ড সম্পর্কোন্নয়নের প্রতিফলন উল্লেখ করে তিনি বলেন, এর ফলে থাই পাসপোর্টের গুরুত্ব বাড়বে।

মালয়েশিয়ার পর চীন থেকেই সবচেয়ে বেশি বিদেশি পর্যটক পায় থাইল্যান্ড।

পূর্বের খবর‘বহুদলীয় গণতান্ত্রিক নির্বাচনের বিভ্রম তৈরি করছে আওয়ামী লীগ’: শ্রীরাধা দত্ত
পরবর্তি খবরসোয়া ৩ কোটি ভোটার নিশ্চিত করতে হাইকোর্টে রিট