ভারতকে দুটি বন্দর ব্যবহারের অনুমতি দিলো শেখ হাসিনা

62

অনলাইন ডেস্ক:

চালু হতে চলেছে ভারত এবং বাংলাদেশের মধ্যে যোগাযোগ রক্ষাকারী মৈত্রী সেতু। সেইসঙ্গে দুদেশের মধ্যে খুলছে যোগাযোগের নতুন দ্বার। আর এ সময়েই ভারতকে নিজেদের দুটি বন্দর ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো ভারতীয়দের চট্টগ্রাম ও মোংলাবন্দর ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে বলে জানিয়েছেন সে দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। ফলে ভারতের উত্তর–পূর্বাঞ্চলের অর্থনীতি বদলে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

মুম্বাইয়ে মঙ্গলবার ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্টের (আইআইএম) শিক্ষার্থীদের নিয়ে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন। আইআইএম মুম্বাইয়ের ইউটিউব চ্যানেলে এই অনুষ্ঠান সম্প্রচার করা হয়।

বক্তৃতায় এস জয়শঙ্কর বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের সড়ক যোগাযোগের কথা উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের রেল ও বাস যোগাযোগ রয়েছে। বাংলাদেশের ইতিহাসে এই প্রথমবার দেশটির ভেতর দিয়ে ভারতীয়দের যাওয়া ও বাংলাদেশের বন্দর ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছে। এর একটি বড় প্রভাব পড়বে ভারতের উত্তর–পূর্বাঞ্চলে।

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এটা (বাংলাদেশের অনুমতি) না হলে উত্তর–পূর্বাঞ্চলের মানুষকে শিলিগুড়ি দিয়ে এসে তার পর ভারতের পূর্বাঞ্চলের বন্দরগুলোতে যেতে হতো। তারা এখন চট্টগ্রাম ও মোংলাবন্দর ব্যবহার করতে পারবে।

পূর্বের খবরপরিবারগুলোর কাছে ক্ষমা চাইলেন জাকারবার্গ
পরবর্তি খবরআইনমন্ত্রীর ‘৫০ বছর তত্ত্বে’ সাগর-রুনি পরিবারে অনন্ত হতাশা