বাংলাদেশে সুষ্ঠু নির্বাচন আয়োজন ও ‘টার্গেটেড স্যাংশন’ আরোপের দাবি অস্ট্রেলিয়ান সিনেটরের

90

 বাংলাদেশে অবাধ, সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন আয়োজনে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করতে নিজ দেশের সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রভাবশালী সিনেটর ডেভিড শুব্রিজ। এছাড়াও বিচারবহির্ভূত হত্যা, অপহরণ এবং নির্যাতনের দায়ে অভিযুক্তদের ওপর ‘স্যাংশন’ আরোপের আহ্বান জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) দেশটির সংসদের উচ্চকক্ষ সিনেটে এক বক্তৃতায় তিনি এ আহ্বান জানান।ডেভিড শুব্রিজ অস্ট্রেলিয়ান ‘গ্রিনস’ দলের নেতা। এ দলটির সহযোগিতায় ২০২২ সালের ২৩ মে দীর্ঘ ৯ বছর পর সরকার গঠন করে ক্ষমতাসীন লেবার পার্টি। যে সরকারের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছিলেন অ্যান্থনি আলবেনিজ।

সিনেটে দেওয়া বক্তৃতায় ডেভিড শুব্রিজকে স্পিকারের উদ্দেশ্যে বলেন, গ্রিনসরা বাংলাদেশে চলমান মানবাধিকার লঙ্ঘন এবং আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে এসবের সম্ভাব্য প্রভাব সম্পর্কে দীর্ঘদিন ধরেই উদ্বেগ জানিয়ে আসছে। সেদেশে (বাংলাদেশ) সংগঠিত বিচারবহির্ভূত হত্যা, অপহরণ এবং নির্যাতনের মতো অপরাধ যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডিপার্টমেন্ট ও অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল নথিভুক্ত করেছে। তাই অস্ট্রেলিয়ান সরকারের উচিৎ এসব অপরাধের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ গ্রহণ করা এবং ম্যাগনিটস্কি আইনের অধীনে সেসব অপরাধীদের ওপর ‘টার্গেটেড স্যাংশন’ আরোপ করা।

অস্ট্রেলিয়ান এ সিনেটর বলেন, ২০১৪ এবং ২০১৮ সালের নির্বাচনে বিরোধী রাজনৈতিক দল, সুশীল সমাজ ও গণমাধ্যমের বিরুদ্ধে ভয়ভীতি প্রদর্শন ও নির্যাতন লক্ষ্য করা গেছে। সেগুলো প্রতিরোধেও ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

ডেভিড শুব্রিজ বলেন, অবাধ, সুষ্ঠু ও অন্তর্ভুক্তিমূলক নির্বাচন আয়োজনে গ্রিনসরা কূটনীতির মাধ্যমে আইনের শাসন এবং মানবাধিকার প্রচারে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। তাই নির্বাচনের আগেই বাংলাদেশের সরকারের সঙ্গে (এ নিয়ে) গঠনমূলক আলোচনা ও অস্ট্রেলিয়ান সরকারের নীতি পরিষ্কার করার আহবান জানাচ্ছে।

উল্লেখ্য, এর আগে চলতি বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি দেশটির আরেক সিনেটর ও গ্রিনস দলের আরেক নেতা জ্যানেট রাইস ‘বৈশ্বিক মানবাধিকার পরিস্থিতি’ নিয়ে পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ সিনেটে বক্তৃতার সময় বাংলাদেশে বিচারবহির্ভূত হত্যা, গুম ও নির্যাতনসহ মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা বন্ধে জরুরি পদক্ষেপ নিতে অস্ট্রেলিয়ার সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন।

পূর্বের খবরএশিয়া কাপে ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের সান্ত্বনার জয়
পরবর্তি খবরবাংলাদেশে সুশীল সমাজকে হয়রানি না করতে সরকারের প্রতি ইইউ’র আহ্বান