বাংলাদেশে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন আয়োজনে শান্তিপূর্ণ পথ খোঁজার আহ্বানঃ জোসেপ বরেল

177

অনলাইন ডেস্কঃ বাংলাদেশে গণতন্ত্র, মানবাধিকার ও মৌলিক স্বাধীনতার জন্য সহায়ক অংশগ্রহণমুলক নির্বাচনের জন্য শান্তিপূর্ণ পথ খুঁজে পাওয়া গুরুত্বপূর্ণ বলে মন্তব্য করেছেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক শীর্ষ কর্মকর্তা জোসেপ বরেল৷

রোববার সামাজিকমাধ্যম এক্সে দেওয়া এক পোস্টে  তিনি বলেন, ‘‘সহিংসতা থেকে দূরে থাকতে আমরা সব দলের প্রতি আহ্বান জানাই৷ সবক্ষেত্রেই ন্যায়বিচার নিশ্চিত করতে হবে৷’’

তার আগে ফরাসি সংবাদসংস্থা এএফপি বাংলাদেশের জাতীয় দৈনিক প্রথম আলোকে উদ্ধৃত করে জানায়, ২৮ অক্টোবর বিএনপির সমাবেশ পণ্ড হওয়ার পর থেকে এক সপ্তাহে বিরোধী দলের প্রায় আট হাজার নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ৷

একই দাবি বিএনপি সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর৷ রোববার এক ভার্চুয়াল ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, ‘‘গত ২৮ অক্টোবর থেকে এখন পর্যন্ত ৭ হাজার ৯৭৪ জন বিএনপি নেতা কর্মীদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷’’

বিরোধী নেতাকর্মীদের আটকের এই বিষয়টি উল্লেখ করে উদ্বেগ প্রকাশ করেন জোসেপ৷ তিনি বলেন, ‘‘বাংলাদেশে বিরোধী দলের আট হাজার নেতাকর্মীর গ্রেপ্তারের ঘটনায় আমি উদ্বিগ্ন৷’’

অপরাধজনিত কারণেই বিএনপি নেতাদের ধরা হচ্ছে: আইনমন্ত্রী

ঢাকায় গত ২৮ অক্টোবর বিএনপির মহাসমাবেশ পণ্ড হওয়ার পর গত আটদিনে রাজধানীর বিভিন্ন থানায় দলটির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে নতুন করে ৮৯টি মামলা হয়েছে৷ এসব মামলায় শুধু ঢাকা থেকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে দলটির দুই হাজার ১৭২ জন নেতাকর্মীকে৷

এসব মামলায় প্রতিদিনই গ্রেপ্তার হচ্ছেন বিএনপি নেতাকর্মীরা৷ গ্রেপ্তার এড়াতে অনেকে আত্মগোপনে রয়েছেন৷ এছাড়া, সারাদেশে গত এক সপ্তাহে প্রায় আটহাজার বিরোধী দলীয় নেতাকর্মী গ্রেপ্তার হয়েছেন বলে ঢাকার দৈনিক প্রথম আলোর বরাতে জানিয়েছে ফরাসি বার্তাসংস্থা এএফপি৷ বিএনপির পক্ষ থেকেও একই তথ্য জানানো হয়েছে৷

বিএনপি এবং বেশ কয়েকটি বিরোধী রাজনৈতিক দলের অবরোধের মধ্যে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রেণে রাখতে রোববার সারাদেশে ৬৫ হাজার আনসার সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে৷ ঢাকা ও আশপাশের এলাকায় মোতায়েন রয়েছে ২৭ প্লাটুন বিজিবি৷

এদিকে, নির্বাচন পদ্ধতি নিয়ে বিএনপির সঙ্গে আলোচনার আর কোনো সুযোগ নেই বলে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নেতারা জানিয়েছেন৷ এমন পরিস্থিতিতে অবরোধের মতো কর্মসূচি থেকে সরে এসে বিএনপিকে সরকারের সঙ্গে নিঃশর্ত সংলাপে বসা উচিত বলে মত দিয়েছেন একজন রাজনৈতিক বিশ্লেষক৷

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘‘সংলাপ সন্ত্রাসের সঙ্গে হয় না৷ বিএনপি সন্ত্রাসী দল, এবার আরও প্রমাণ করেছে৷ তারা আগুন সন্ত্রাসী দল, এই দলের সঙ্গে সংলাপ হতে পারে না৷ সংলাপের পার্ট শেষ৷ এক সময় বলেছিলাম কন্ডিশন তুলে নাও, আমরা ভেবে দেখব৷ এখন তারা যা করেছে, সংলাপের কোনো পরিবেশ নেই৷’’

গত ২৮ অক্টোবর নয়া পল্টনে সহিংসতা শুরু হলে পুলিশের অভিযানে বিএনপির সমাবেশ পণ্ড হওয়ার  প্রতিবাদে ২৯ অক্টোবর হরতাল দেয় দলটি৷ এরপর গত ৩১ অক্টোবর থেকে তিনদিন অবরোধ কর্মসূচি পালন করে৷ মাঝে শুক্র-শনিবার বিরতি দিয়ে রোববার ও সোমবার একই কর্মসূচি দিয়েছে বিএনপি৷

বিএনপির উচিত নিঃশর্তভাবে সরকারের সঙ্গে সংলাপ করা: অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক হারুন-অর-রশিদ

ডিএমপি জানিয়েছে, গত ২৮ অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত আট দিনে ঢাকায় আইনশৃঙ্খলার অবনতি ও সহিংসতায় ৮৯টি মামলা হয়েছে৷ এসব মামলায় বিএনপির ২ হাজার ১৭২ জন নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ৷ গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস ও আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, কেন্দ্রীয় নেতা মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, জহিরউদ্দিন স্বপন, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আলতাফ হোসেন চৌধুরী রয়েছেন৷

রাজনৈতিক কারণে নয়, অপরাধজনিত কারণেই বিএনপি নেতাদের ধরা হচ্ছে বলে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক দাবি করেছেন৷ সচিবালয়ে রোববার মন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘উনাদেরকে (বিএনপি নেতা) রাজনৈতিক কারণে ধরা হয়নি, উনাদেরকে অপরাধজনিত সংশ্লিষ্টতায় ধরা হয়েছে, রাজনীতির সাথে এটার কোনো কানেকশন নেই৷’’

বিএনপি এখন খাদের মধ্যে পড়ে গেছে দাবি করে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক হারুন-অর-রশিদ বলেন, ‘‘তাদের উচিত হবে নিঃশর্তভাবে সরকারের সঙ্গে সংলাপ করা, নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে বসা, নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য কীভাবে করা যায় সেই পরামর্শ রেখে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা৷’’

পূর্বের খবরআঃ লীগ পছন্দ না করলেও নির্বাচনে বিএনপি অংশ নিবে আশা করি: সিইসি
পরবর্তি খবরবিএনপি’র নেতাকর্মীদের ‘গ্রেফতার ঝড়’ চলছে, ‘কর্মসূচিতে বৈচিত্র্য খুঁজছে দলটি’