‘বাংলাদেশের রাজনৈতিক গতিপথ নির্ধারণে ভারত অযাচিত হস্তক্ষেপ করছে’

64

ঢাকাঃ বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, আওয়ামী লীগের সঙ্গে সম্পর্ক গভীর করার অংশ হিসেবে, বাংলাদেশের রাজনৈতিক গতিপথ নির্ধারণে ভারত ‘অযাচিত হস্তক্ষেপ’ করছে।

সোমবার (২২ জানুয়ারি) নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, “ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্কর উগান্ডায় বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বলেছেন, বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক দৃঢ় থেকে দৃঢ়তর হচ্ছে।”বিএনপি জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

রিজভী বলেন, জয়শঙ্করের বক্তব্য আংশিক সত্য। তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক গভীর হয়েছে; কিন্তু বাংলাদেশের জনগণের সঙ্গে নয়।

“আওয়ামী লীগের সঙ্গে সম্পর্ক জোরদারের প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ ও রাজনৈতিক গতিপথ নির্ধারণে ভারতের অযাচিত হস্তক্ষেপের কারণে বাংলাদেশের জনগণ তাদের গণতন্ত্র, বাক স্বাধীনতা ও ভোটের অধিকার হারিয়েছে;” অভিযোগ করেন রুহুল কবির রিজভী।

জনগণের ভোট ছাড়াই আওয়ামী লীগ ক্ষমতা দখল করায় দেশের সর্বত্র নৈরাজ্য বিরাজ করছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

দেশে গ্যাস ও বিদ্যুৎ সংকট গভীরতর হওয়ার জন্য সরকারের সমালোচনা করেন এই বিএনপি নেতা। রিজভী বলেন, সরকার বাংলাদেশের মতো একটি উন্নয়নশীল দেশকে আমদানিনির্ভর রাষ্ট্রে পরিণত করেছে।

জনগণের ভোটাধিকার জনগণের ক্ষমতায়নের পূর্বশর্ত উল্লেখ করেন রিজভী। তিনি বলেন, “জনগণের ক্ষমতায়ন ও ১২ কোটি মানুষের ভোটাধিকার ফিরিয়ে আনতে বিএনপিসহ অন্যান্য গণতান্ত্রিক দল রাজপথে সক্রিয় রয়েছে।”

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব বলেন, সরকার প্রতারণামূলক নির্বাচন করতে গিয়ে তিন-চার মাস ধরে বিএনপির শত শত নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে।

“নেতা-কর্মীদের কেউ শারীরিক নির্যাতনে মারা গেছেন, আবার অনেকে পঙ্গু হয়েছেন। হেফাজতে ও রিমান্ডে নির্যাতন সব রেকর্ড ভঙ্গ করেছে এই সরকার;” বলেন তিনি।

বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন রুহুল কবির রিজভী; আর খালেদা জিয়াকে বিদেশে উন্নত চিকিৎসার সুযোগ দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

জয়শঙ্কর: ‘ঢাকা-দিল্লি সম্পর্ক গভীরতর হচ্ছে’

বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে সম্পর্ক আরো গভীর হচ্ছে বলে উল্লেখ করেছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্কর। ১৯তম ন্যাম সম্মেলনের ফাঁকে, বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের সঙ্গে বৈঠকের সময় তিনি এ কথা বলেন।

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্কর এবং বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ
ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস জয়শঙ্কর এবং বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ

জয়শঙ্কর উল্লেখ করেন যে কাম্পালায় বাংলাদেশের নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের সঙ্গে দেখা করতে পেরে তিনি আনন্দিত।

বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় শনিবার (২০ জানুয়ারি) জানায়, উভয় দেশের মন্ত্রী পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছেন।

তারা, দুই দেশের মধ্যে বিদ্যমান চমৎকার দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক আরো এগিয়ে নেয়ার বিষয়েও আলোচনা করেছেন বলে জানিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। বলেছে, তারা বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আসন্ন নয়াদিল্লি সফর নিয়েও আলোচনা করেন।

বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক আরো জোরদার করতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি ভারতের নয়াদিল্লি সফর করার কথা রয়েছে।

পূর্বের খবরবাবরি মসজিদ থেকে বিতর্কিত রাম মন্দির নির্মাণের আখ্যান
পরবর্তি খবরদেশে এখনো শীত উপদ্রুতদের মুখে ত্রাণ না পাওয়ার অভিযোগ