বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে যা বলা হচ্ছে

49
আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে বাংলাদেশের নির্বাচন

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশে ৭ জানুয়ারি জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। তবে নির্বাচনের ফল কী হবে, তা আগেই বোঝা যাচ্ছে। প্রধান বিরোধীরা নির্বাচন বর্জন করায় এবং তাদের অনেক নেতা কারাগারে থাকায় সংসদে টানা চতুর্থবারের মতো নির্বাচিত হতে যাচ্ছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

গতকাল বুধবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম দ্য ওয়াশিংটন পোস্টের এক প্রতিবেদনের শিরোনাম ছিল—‘একসময় বাংলাদেশে গণতন্ত্রের জন্য লড়াই করেছেন শেখ হাসিনা। তাঁর সমালোচকেরা বলছেন, তিনি এখন এর (গণতন্ত্র) জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছেন’। গতকাল সংবাদমাধ্যমটিতে প্রকাশিত আরেক প্রতিবেদনের শিরোনাম করা হয়—‘বাংলাদেশে রোববার ভোট, তরুণ ভোটাররা রাজনৈতিক বিশৃঙ্খলামুক্ত ভবিষ্যতের স্বপ্ন দেখেন’।

‘রোববার বাংলাদেশে জাতীয় নির্বাচন’ শিরোনামে বার্তা সংস্থা রয়টার্সে আজ বৃহস্পতিবার প্রকাশিত প্রতিবেদনে নৌকা প্রতীকের প্রচার-প্রচারণার কয়েকটি ছবি দেওয়া হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত বছর অর্থনৈতিক সংকটের কারণে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) জরুরি ঋণসহায়তার প্রয়োজন পড়েছিল বাংলাদেশের। তা সত্ত্বেও টানা চার মেয়াদে নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এদিকে আজ বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের একটি সাক্ষাৎকার প্রকাশ করেছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

নির্বাচন নিয়ে গতকাল কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনের শিরোনাম ছিল—‘“ডামি” প্রার্থী, জোর করে ভোট আদায়: বাংলাদেশের নির্বাচনী “নাটকের” ভেতরের চিত্র’। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশে প্রধান বিরোধীরা রোববারের নির্বাচন বর্জন করেছে। নির্বাচনে ‘ডামি’ প্রার্থী দাঁড় করানোর অভিযোগ উঠেছে ক্ষমতাসীন দলের বিরুদ্ধে। ভোট দিতে মানুষকে হুমকি দিচ্ছে তারা।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক ফিন্যান্সিয়াল টাইমস শিরোনাম করেছে, ‘বাংলাদেশে নির্বাচন একদলীয় শাসনে যাওয়ার শঙ্কা বাড়াচ্ছে’।

‘বাংলাদেশে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করেও দৌড়ের ওপর রয়েছেন বিরোধীরা’ শিরোনামে গতকাল পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম ডনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বাংলাদেশে রাজনৈতিক বিরোধীদের ওপর দমন–পীড়ন চালানো হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল ও হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ)। তবে তা প্রত্যাখ্যান করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তাঁর দল আওয়ামী লীগ বারবার বলেছে, নির্বাচন বানচাল করতে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে বিএনপি।

বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে ভারতের গণমাধ্যমগুলোয় নিয়মিত খবরের পাশাপশি মতামতভিত্তিক লেখা প্রকাশ করা হচ্ছে। আজ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের এমনই এক লেখার শিরোনাম—‘বাংলাদেশের নির্বাচনে দড়ি টানাটানির খেলা: ইসলামি মৌলবাদ বনাম গণতন্ত্র’। আর আজ এনডিটিভিতে প্রকাশিত একটি লেখার শিরোনাম—‘বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে ভারত ও যুক্তরাষ্ট্রের মতবিরোধ’।

পূর্বের খবরএবারের একতরফা নির্বাচনে মোট দেড় হাজার কোটি টাকারও বেশি খরচ হচ্ছে?
পরবর্তি খবরশেখ হাসিনা সরকার ২০১৮ নির্বাচনের আগে কতগুলো প্রতিশ্রুতি রেখেছে?