প্রখ্যাত শ্রমিকনেতা ও বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম খানের ১৯তম মৃত্যুবার্ষিকী আগামীকাল

58

ঢাকাঃ প্রখ্যাত শ্রমিকনেতা ও বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম খানের ১৫তম মৃত্যুবার্ষিকী আগামীকাল। অনলাইন নিউজ পোর্টালনিউজ২১বিডি.নেটের প্রতিষ্টাতা সম্পাদক এবং বাংলাদেশ অনলাইন মিডিয়া এ্যাসোসিয়েশন (বোমা)’র সভাপতি বিশিষ্ট সাংবাদিক একেএম শরীফুল ইসলাম খানের পিতা বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রখ্যাত শ্রমিক নেতা সিরাজুল ইসলাম খান একজন বাউল গবেষক এবং একজন সাদামনের মানুষ ছিলেন। এই উপলক্ষে বৃহস্পতিবার বাদ ফজর গ্রামের বাড়ি সাতবাড়িয়া কবর স্থান হাফেজিয়া মাদ্রাসা পবিত্র কোরআনে খতম ও দোয়া ও বাদ যোহর  টংগীস্থ নিজ বাসভবনে এক মিলাদ-দোয়ার আয়োজন করা হয়েছে।

মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম খান বিক্রমপুরস্থ লৌহজং থানার হলদিয়া গ্রামের মরহুম আলম খান সাহেবের পুত্র এবং সাবেক মন্ত্রী ও স্পিকার এম. কোরবান আলীর ভগ্নিপুত্র।

ছাত্র জীবনে তিনি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় ক্রীড়া সম্পাদক ও জগন্নাথ কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। পেশগত জীবনে তিনি পূর্ব পাকিস্তান সরকারের শিল্প মন্ত্রানালয় চাকুরিতে নিয়োজিত ছিলেন, এসময়ে তিনি শ্রমিক আন্দলনে জড়িয়ে পরেন, পরবর্তীকালে বিভিন্ন পর্যায়ে নেতৃত্ব দেন। No description available.

তিনি পূর্ব পাকিস্তান সবায়ত্বশাসিত শ্রমিক ফেডারেশন এর যুগ্ম সম্পাদক, পরে বাংলাদেশ সায়ত্বশাসিত শ্রমিক ফেডারেশন এর প্রতিষ্টাতা সাধারণ সম্পাদক ও বাংলাদেশ ইস্পাত ও প্রকোশলী কর্পোরেশন কর্মচারী ইউনিয়ন(সিবিএ) এবং বাংলাদেশ ইস্পাত ও প্রকোশলী কর্পোরেশন শ্রমিক-কর্মচারী ফেডারেশনের প্রতিষ্টাতা সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

মরহুম ও সিরাজুল ইসলাম খান ৭১’র মুক্তিযুদ্ধে রণাঙ্গনে সক্রিয় অংশগ্রহণ করেন। তিনি আজীবন বিভিন্ন মানবিক-সামাজিক সংগঠনের সহিত জড়িত ছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স ছিল ৬২ বছর। আজ মরহুমের স্মরণে তার গ্রামের বাড়ী লৌহজং থানার হলদিয়া ও টঙ্গিস্থ বাসভবনে দোয়া-মিলাদের আয়োজন করা হয়েছে।

পূর্বের খবরনাহিয়ান হারুন আ. লীগের শিল্প ও বাণিজ্য উপকমিটির সদস্য মনোনীত
পরবর্তি খবরবিএনপির নেতা কর্মীদের এখনই গুলি করতে শুরু করেছে: মির্জা ফখরুল