পাতানো নির্বাচনের খেলায় মেতে উঠবেন না ১২ দলীয় জোট

133

রাজনীতি:

২০১৪ ও ২০১৮ সালের মতো এবারের নির্বাচন না করার আহ্বান জানিয়েছে বিএনপির সমমনা ১২ দলীয় জোট। জোটের নেতারা সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, ‘আবারো পাতানো নির্বাচনের খেলায় মেতে উঠবেন না।’

বুধবার (৬ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজধানীতে বিএনপির অবরোধের সমর্থনে বিক্ষোভ মিছিল শেষে পল্টন মোড়ে এসব কথা বলেন জোটের নেতারা।

এসময় রাজবন্দীদের মুক্তি, শেখ হাসিনার পদত্যাগ ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে জাতীয় নির্বাচনের দাবি জানায় তারা।

বাংলাদেশ এলডিপির মহাসচিব ও ১২ দলীয় জোটের মুখপাত্র শাহাদাত হোসেন সেলিম বলেন, যদি শান্তিপূর্ণভাবে বিদায় নিতে চান অনতিবিলম্বে এই তামাশার নির্বাচনের তফসিল বাতিল করুন।
নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে একটি অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচন দিন। তবে, তত্ত্বাবধায়ক ইস্যুতে নির্বাচনকালীন আলোচনায় উত্তরণের পথটা এখনও একেবারে শেষ হয়ে যায় নাই।

তিনি বলেন, এই বিজয়ের মাসেই কঠোর আন্দোলনের মুখে আওয়ামী অবৈধ সরকারের পতন সুনিশ্চিত। বিরোধীদলীয় নেতাকর্মীদের ওপর হামলা মামলা ও নির্যাতন অবিলম্বে বন্ধ করুন এবং বেগম খালেদা জিয়া, মির্জা ফখরুলসহ গ্রেপ্তারকৃত নেতাকর্মীদের মুক্তি দিন।

তিনি আরও বলেন, বাংলার মাটি ও মানুষ নিয়ে খেলা করার দিল্লী কে? কথাবার্তা পরিস্কার দিল্লি আওয়ামী লীগের বন্ধু হতে পারে, তবে বাংলাদেশের প্রভু নয়।

বিক্ষোভ মিছিলে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ বক্তব্য রাখেন জাগপার সহ-সভাপতি রাশেদ প্রধান, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামী বাংলাদেশের মহাসচিব মাওলানা মুফতি মহিউদ্দিন ইকরাম, বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ফারুক রহমান, বাংলাদেশ জাতীয় দলের ভাইস চেয়ারম্যান শামসুল আহাদ প্রমুখ।

পূর্বের খবরঘূর্ণিঝড় মিগজাউমে চেন্নাইয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৭
পরবর্তি খবরমার্কিন নিষেধাজ্ঞায় পড়লে বাংলাদেশের পোশাক না আমদানির শর্ত যুক্তরাষ্ট্রের ক্রেতা প্রতিষ্ঠানের!