নির্বাচনের পাতানো ফাঁদে পা দেবে না ইসলামী আন্দোলন ও সিপিবি

70

ঢাকাঃ ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির ও চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করিম বলেছেন, অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি না হলে নির্বাচনের নামে পাতানো ফাঁদে পা দেবে না তার দল। আর এদিকে শুক্রবার বিকেলে কোন পাতানো নির্বাচনে যাবে না বলে জানান বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) এর সাবেক সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম।

চরমোনাই দরবার শরীফের বাৎসরিক মাহফিলের তৃতীয় দিনে আজ শুক্রবার প্রথম অধিবেশনে অনুষ্ঠিত ছাত্র গণজমায়েতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির ও চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করিম এ কথা বলেন তিনি।

সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করিম বলেন, ‘বস্তুবাদী রাজনৈতিক সংগঠনগুলো ছাত্র রাজনীতির নামে সন্ত্রাসী তৈরির কারখানায় পরিণত হয়েছে। কিন্তু দেশের ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব প্রদানে আদর্শিক জনশক্তি উৎপাদনে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে ইসলামী ছাত্র আন্দোলন।’

গণজমায়েতের বক্তারা বলেন, অন্যান্য ছাত্র সংগঠনে নেতৃত্ব প্রদানের আগে যোগ্যতা হিসেবে দেখা হয় কে কত সন্ত্রাসী কার্যক্রমে যুক্ত। কে কেন্দ্র দখল করতে পারবে, চাঁদাবাজি ও মাদকের সাম্রাজ্য গঠন করতে পারবে। কিন্তু ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশের দায়িত্ব প্রদানের আগে যাচাই করা হয় জ্ঞান ও সৎকর্ম। ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশ সব সময় আদর্শিক নৈতিক শিক্ষা সিলেবাস প্রণয়নে সচেতন ভূমিকা ও সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছে। একইসঙ্গে সমাজসেবা ও দেশের অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য কাজ করছে তারা।

ইসলামী ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি শরিফুল ইসলাম রিয়াদের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন, ইসলামী আন্দোলনের মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, যুগ্ম মহাসচিব মুহাম্মাদ আমিনুল ইসলাম, চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি দেলোয়ার সাকি, কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক মাওলানা লোকমান হোসাইন জাফরী, ইসলামী মুক্তিযোদ্ধা পরিষদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেমসহ আরও অনেকে।

আগামীকাল শনিবার সকাল ৮টায় আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে মাহফিলের কার্যক্রম শেষ হবে বলে জানিয়েছেন মাহফিল মিডিয়া কমিটির সদস্য এইচ এম সানাউল্লাহ।

আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে যাবে না সিপিবি

আসন্ন জাতীয় সংসদ অংশ নেবে না বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)। শুক্রবার বিকেলে পল্টনের মুক্তিভবনে অনুষ্ঠিত সমাবেশে এই সিদ্ধান্ত জানান সিপিবির সাবেক সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম।

তিনি বলেন, সিপিবি নির্বাচন চায়। কিন্তু নির্বাচনের নামে প্রহসনের বা ভুয়া নির্বাচন চায় না। তাই এমন নির্বাচনে সিপিবি অংশ নেবে না। বরং জনগণকে এই নির্বাচন প্রতিহত করার আহ্বান জানান তিনি।

সেলিম বলেন, দলীয় সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়। অন্যান্য দল আওয়ামী লীগের সাথে আপস করতে পারে। কিন্তু সিপিবি আপস করবে না।

পূর্বের খবরভারতে সাংবাদিক কলামিস্ট মীর আলিমের বিরল সম্মাননা লাভ
পরবর্তি খবরবিশিষ্ট ৫৮৬ নাগরিকের বিবৃতিঃ একতরফা নির্বাচন দেশকে আরো সংঘাতের দিকে নিয়ে যাবে: