দেশের ২৫ সরকারি বেসরকারি ওয়েবসাইট ভারতীয় হ্যাকারদের দখলে

84

নিউজ ডেস্কঃ বাংলাদেশি সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ২৫টি ওয়েবসাইট সম্ভাব্য সাইবার হামালার ঝুঁকির মধ্যেই ভারতীয় হ্যাকারদের কবলে পরেছে।

হ্যাকিংয়ের স্বীকার হওয়া ওয়েবসাইটের মধ্যে ডিরেক্টর জেনারেল অব হেলথ সার্ভিস ও ইনভেস্টমেন্ট কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ ওয়েবসাইটের তথ্য ফাঁস হয়েছে বলে জানা যায়।

ভারতীয় হ্যাকারদের দলটি ১৫ আগস্টকে কেন্দ্র করে সাইবার হামলার হুমকি দিলে দেশ জুড়ে সতর্কতা জারি করা হয়। সতর্কতার মধ্যেই দেশের বিভিন্ন ওয়েবসাইট তথ্য ফাঁসসহ সাইবার হামলার স্বীকার হয়েছে।

ইনভেস্টমেন্ট কর্পোরেশন অব বাংলাদেশের ওয়েবসাইটে প্রায় ১০ হাজার বিনিয়োগকারী এবং বিনিয়োগ আবেদনকারীর গুরুত্বপূর্ণ তথ্য রয়েছে। যার মধ্যে বিনিয়োগকারীদের নাম, ঠিকানা, ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নম্বর, ও সরকারের মিউচুয়াল ফান্ডের তথ্য রয়েছে।

অন্যদিকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের ওয়েবসাইট থেকে বিভিন্ন সরকারি হাসপাতাল থেকে আদায়কৃত রাজস্বের পরিসংখ্যান ফাঁস হয়েছে।

ভারতীয় হ্যাকাররা দাবি করছে বাংলাদেশ ব্যাংকের ৪০ হাজার রেকর্ডেট তথ্য তাদের দখলে রয়েছে। এছাড়াও ভূমি মন্ত্রণালয়ের ভূমি কর পোর্টাল, পুলিশের বিভিন্ন ইউনিট, কয়েকটি ব্যাংকের ওয়েবসাইট ও টিকেটিং ওয়েবসাইট হ্যাক হয়েছে।

সাইবার হামালার আশঙ্কা থেকে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব) এর সহায়তায় সরকারি বিভিন্ন সংস্থা ও ব্যাংকগুলো সতর্ক অবস্থানে ছিলো বলে জানায় র‍্যাবের লিগ্যাল ও মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খোন্দকার আল মইন।

দুই মাসের ব্যবধানে দেশের সাইবার জগতে দ্বিতীয়বারের মতো হামলায় তথ্য নিরাপত্তার বিষয়টি আবারও সামনে চলে এসেছে। সাইবার হামালার প্রথম ঘটনাটি ঘটে জুন মাসের ২০ তারিখে।

এদিকে নির্বাচন কমিশন জাতীয় পরিচয়পত্রের সার্ভারটি মঙ্গলবার (১৫ আগস্ট) দুপুরে বন্ধ করে দেয়। রক্ষণাবেক্ষণের কাজ শেষে বুধবার (১৬ আগস্ট) তা খুলে পুনরায় খুলে দেয়া হয়। সংশ্লিষ্ট বিভাগের তথ্য অনুযায়ী, জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্যভাণ্ডার বা সার্ভারে সাইবার হামলার কোন আলামত পাওয়া যায়নি।

পূর্বের খবরবাংলাদেশের নির্বাচন ইস্যুতে কোনো হস্তক্ষেপ করবে না চীন : রাষ্ট্রদূত
পরবর্তি খবররাজবাড়ীর আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ জাহাঙ্গীরকে