জাতীয় পার্টি এই নির্বাচন বর্জনের পক্ষে মতামত দিলেন

109

ঢাকাঃ জাতীয় পার্টির (জাপা) মাঠপর্যায়ের নেতারা বর্তমান সরকারের অধীনে নির্বাচনে না যাওয়ার মত দিয়েছেন। পাশাপাশি তাঁরা বিএনপির সঙ্গে যেতে আগ্রহ দেখিয়েছেন।

মঙ্গলবার দলের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির জরুরি সভায় মাঠপর্যায়ের নেতারা এ মত দেন বলে সভায় উপস্থিত একাধিক সূত্রে জানা গেছে। রাজধানীর কাকরাইলে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে সভাটি হয়।

সূত্র জানিয়েছে, সভায় ৫৯ জন নেতা বক্তব্য দেন। এর মধ্যে ঢাকা মহানগর উত্তরের একজন নেতা ছাড়া বাকি সবাই এবার আওয়ামী লীগের সঙ্গে সমঝোতা করে নির্বাচনে না যাওয়ার পক্ষে মত দেন। ভিন্ন মত পোষণকারী ওই নেতা বলেন, আওয়ামী লীগ বিপদে পড়লে জাতীয় পার্টিও রক্ষা পাবে না। এ সময় সভায় উত্তেজনা দেখা দেয়। একপর্যায়ে বক্তব্য শেষ না করেই তিনি নেমে যান।

জানা গেছে, জাপার ২৯৯ সদস্যের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির এ সভায় ৬২টি জেলার এবং অঙ্গসংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকেরাও অংশ নেন। সকাল ১০টা থেকে মাঝে দুপুরে খাবারের বিরতি দিয়ে বিকেল ৫টা পর্যন্ত এ সভা হয়। এতে ৫৯ জন নেতা বক্তব্য দেন। তবে জাপার শীর্ষ নেতারা উপস্থিত থাকলেও তাঁদের মধ্যে চেয়ারম্যান জি এম কাদের ও মহাসচিব মুজিবুল হক ছাড়া কেউ বক্তব্য দেননি।

মুজিবুল হক উপস্থিত তৃণমূলের নেতাদের কাছে জানতে চান, ‘আওয়ামী লীগের সঙ্গে না থাকলে আমরা কী করব?’ এ সময় নেতারা বিএনপির সঙ্গে যাওয়ার ব্যাপারে মত দেন।

এ পর্যায়ে মহাসচিব বলেন, নির্বাচনের বিষয়ে সব সিদ্ধান্ত নেওয়ার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে চেয়ারম্যানকে। তিনি দেশ, জনগণ ও দলের স্বার্থে যে সিদ্ধান্ত নেবেন, তা সবাই মেনে নেবেন।

সভা শেষে জি এম কাদের বলেন, ‘আমি নেতাদের আবেগ বুঝলাম, তাঁদের মতামত জানলাম। দেশ ও জনগণের চাহিদা মোতাবেক আমরা সিদ্ধান্ত নেব।’

পূর্বের খবরশর্তহীন সংলাপের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোনাল্ড লুর চিঠির পরই দ্রুত তফসিল?
পরবর্তি খবরসংলাপ নিয়ে ডোনাল্ড লু’র চিঠি কতটা কাজে আসবে?