খুলনায় উপজেলা চেয়ারম্যানের নামে ধর্ষণের অভিযোগ

47

নিজস্ব প্রতিনিধি :

খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান গাজী এজাজ আহমেদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন এক তরুণী।

শনিবার (২৮ জানুয়ারি) রাত সোয়া ১১টার দিকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালের ওয়ান-স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি হয়েছেন তিনি।

ওসিসির কো-অর্ডিনেটর ডা. সুমন রায় জানান, ডুমুরিয়ার ২৮ বছরের তরুণী রাত সোয়া ১১টার দিকে খুমেক হাসপাতালের গাইনি ওয়ার্ডে ভর্তি হন।

পরে তাকে ওসিসিতে রেফার্ড করা হয়। তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেছেন।

ওই তরুণী বলেন, ‘মধুগ্রাম কলেজে পড়ার সময় উপজেলা চেয়ারম্যান গাজী এজাজ আহমেদের সঙ্গে আমার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

তারপর বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তিনি দীর্ঘ দিন আমার সঙ্গে অনৈতিক ব্যবহার করেছেন। পরে বিয়ের কথা বললেই টালবাহানা করছেন।

আজও তিনি (শনিবার রাতে) আমার সঙ্গে অনৈতিক ব্যবহার করেছেন।’

ওই তরুণীর ভাই অভিযোগ করে বলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান শনিবার রাতে মোবাইল ফোনে তার বোনকে শাহপুর এলাকায় ব্যক্তিগত অফিসে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেন।

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে অনেক দিন ধরে তার বোনকে ধর্ষণ করছেন। তিনি ডুমুরিয়া থানায় গিয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেবেন বলে জানান।

সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ অস্বীকার করে গাজী এজাজ আহমেদ বলেন, এ সব মিথ্যা অভিযোগ। এ রকম কোনো ঘটনা ঘটেনি।

ডুমুরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকান্ত সাহা বলেন, ‘এ ব্যাপারে এখনও কেউ থানায় অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে।’

পূর্বের খবরইসরায়েল-হামাস যুদ্ধবিরতি চুক্তির অগ্রগতি
পরবর্তি খবরশিল্পী সমিতির নির্বাচন: নিপুনের প্রস্তাবে অনাগ্রহ ফেরদৌসের