ওসাসুনাকে হারিয়ে ফাইনালে রিয়ালের প্রতিপক্ষ বার্সা

47

স্প্যানিশ সুপার কাপের প্রথম সেমিতে আতলেতিকো মাদ্রিদকে ৫-৩ গোলে হারিয়ে ফাইনালে জায়গা করে নেয় রিয়াল মাদ্রিদ। এবার দ্বিতীয় সেমিতে ওসাসুনাকে ২-০ গোলে থামিয়ে শিরোপা জয়ের লড়াইয়ে বেলিংহাম-মদ্রিচদের সঙ্গী হলো টুর্নামেন্টটির বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা।

এতে যেন পুনরাবৃত্তি ঘটল গত বছরের। আবারও রিয়াদে দেখা মিলবে সেই ‘এল ক্লাসিকোর’। গত বছরও স্প্যানিশ সুপার কাপের ফাইনালে উঠেছিল রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনা। রিয়াদে সেই ম্যাচে রিয়ালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে টুর্নামেন্টটির রেকর্ড ১৪তম শিরোপা জিতেছিল কাতালানরা।

সৌদি আরবের রিয়াদের কিং সাউদ ইউনিভার্সিটি স্টেডিয়ামে গতকাল (বৃহস্পতিবার) রাতে শুরু থেকেই আক্রমণের আধিপত্য রেখেও গোলের দেখা পাচ্ছিল না শাভি এর্নান্দেসের দল। প্রথমার্ধ গোলশূন্য থাকার পর দ্বিতীয়ার্ধে এসে ভাঙল সেই খরা। ৫৯তম মিনিটে ইলকায় গুন্দোয়ানের বাড়িয়ে দেওয়া বল থেকে দলকে এগিয়ে নেন পোলিশ ফরোয়ার্ড রবার্ট লেভানডফস্কি।

এরপর ম্যাচের যোগ করা সময় এসে দলের দ্বিতীয় গোলটি করেন লামিন ইয়ামাল। এতেই দুটি রেকর্ড গড়েন তরুণ এই ফরোয়ার্ড। ১৬ বছর ১৮২ দিন বয়সী এই ইয়ামাল এখন স্প্যানিশ সুপার কাপের সর্বকনিষ্ঠ গোলদাতা ও খেলোয়াড়। ভেঙেছেন ১৭ বছর ৭০ দিন বয়সে গড়া আনসু ফাতির রেকর্ড।

আগামী রোববার একই মাঠে হবে ‘এল ক্লাসিকো’। সুপার কাপে শিরোপা জয়ের লড়াইয়ে লড়বে কার্লো আনচেলত্তি ও শাভি এর্নান্দেসের দল।

পূর্বের খবরখালেদা জিয়া অনেকটা সুস্থ বোধ করছেন: ডা জাহিদ
পরবর্তি খবরবিজয় গণতন্ত্রের বিজয়ী: প্রধানমন্ত্রী