উত্তরায় দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে শিক্ষার্থীর মৃত্যু

138

ঢাকাঃ উত্তরায় দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে মো: লিমন আহামেদ (১৮) নামে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। উত্তরার আই,ই,এস উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিল সে। বৃহস্পতিবার রাত ৮ টার দিকে উত্তরা পশ্চিম থানাধীন এলাকায় ঘটনাটি ঘটে।

গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় একটি হাসপাতাল, সেখান থেকে তার বাবা আব্দুল খালেকসহ লিমনের বন্ধুরা রাত সোয়া ১০ টায় ঢামেক হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক পরিক্ষা নিরিক্ষার পর তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সত্যতা নিশ্চিত করেন ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক মোঃ বাচ্চু মিয়া। তিনি বলেন, মৃতদেহটি হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে অবিহিত করা হয়েছে।

জামালপুর সদর উপজেলার গৈনাথপুর গ্রামের আব্দুল খালেক এর ছেলে। বর্তমানে উত্তরা ৫ নম্বর সেক্টরের ১০ নম্বর রোডে পরিবারের সাথে থাকতো।

উদ্ধারকারী নিহতের বন্ধু দিপ হাওলাদার জানান, উত্তরা পশ্চিম থানাধীন ১৪ নং সেক্টর, ১০ নং রোড জহুরা মার্কেটের সামনে বন্ধুদের সাথে চায়ের দোকানে চা খাচ্ছিল তিন বন্ধু, লিমন, দিপ ও আদনান।

সেখানে বখাটে ওবায়দুল, শাহজালাল, মমিনুল সহ  কয়েকজন যুবক তাদের সাথে চলাফেরা না করায় কথা-কাটাকাটি হয়। এরই জেরধরে একপর্যায়ে ওবায়দুল ধারালো ছুরি দিয়ে আদনান কে ছুরিকাঘাত করে, লিমন এগিয়ে গেলে তাকেও বুকে ছুরিকাঘাত করে গুরুতর জখম করে। পরে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

নিহতের মা লাকি বেগম বলেন, ছেলে আমার কাছে নুডলস খেতে চেয়ে ছিল, আমি তা ব্যবস্থা করার আগেই সে বাসা থেকে বের হয়ে যায়। পরে সংবাদ পাই, সন্ত্রাসীরা আমার ছেলে কে কুপিয়ে আহত করেছে। সংবাদ পেয়ে হাসপাতালে এসে ছেলের মরদেহ দেখতে পাই। এক ভাই এক বোনের মধ্যে সে ছিল বড়।

পূর্বের খবরবাংলাদেশে মানবাধিকার লঙ্ঘনে নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপের আহবান মার্কিন সংস্থাগুলোর
পরবর্তি খবরবিএনপি এই মুহূর্তে হরতালে রাজি নয়, আসছে ঘেরাও-অবস্থানসহ শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি