ইরাক ও সিরিয়ায় হামলা চালানোয় যুক্তরাষ্ট্রের কঠোর সমালোচনা

50

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ইরাক ও সিরিয়ায় হামলা চালানোয় যুক্তরাষ্ট্রের কঠোর সমালোচনা করেছে বিশ্বের দুই পরাশক্তি রাশিয়া ও চীন। এই দুই দেশে মার্কিন হামলার জেরে মধ্যপ্রাচ্যজুড়ে সংঘাত ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি আরও বেড়েছে বলে মনে করে মস্কো ও বেইজিং। খবর আলজাজিরার।

সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) ইরাক-সিরিয়ায় মার্কিন হামলা নিয়ে বৈঠকে বসে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ। এই বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্রকে একহাত নেয় নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য চীন ও রাশিয়া। মস্কোর আহ্বানে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গত মাসে জর্ডানের একটি মার্কিন সামরিক ঘাঁটিতে ড্রোন হামলায় যুক্তরাষ্ট্রের তিন সেনা নিহত হওয়ার জবাবে গত শুক্রবার ইরাক ও সিরিয়ায় ইরান সংশ্লিষ্ট ৮৫টি লক্ষ্যবস্তুতে বিমান হামলা চালায় মার্কিন সামরিক বাহিনী। এসব হামলায় দুই দেশে ৪০ জনের মতো মানুষ নিহত হয়।

এই দুই দেশে এত বড় হামলার পরও এখনই হামলায় ইতি না টানার কথা জানিয়েছে জো বাইডেন প্রশাসন। ভবিষ্যতে আরও হামলা চালানোর ঘোষণা দিয়েছে ওয়াশিংটন।

জাতিসংঘে নিযুক্ত রুশ রাষ্ট্রদূত ভ্যাসিলি নেবেনজিয়া বলেন, যুক্তরাষ্ট্র নিজেদের পেশিশক্তি দেখাতে এসব হামলা করেছে। এ ছাড়া দেশের রাজনৈতিক দৃশ্যপট ও প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্রশাসনের ‘ভয়াবহ’ ভাবমূর্তি তৈরি করতে এই হামলা।

ইরাক ও সিরিয়ায় মার্কিন হামলার নিন্দা জানিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে একই ধরনের অভিযোগ এনেছে চীনও। বেইজিংয়ের রাষ্ট্রদূত ঝাং জুন বলেন, যুক্তরাষ্ট্র মুখে বলে তারা মধ্যপ্রাচ্য বা বিশ্বের অন্য কোথাও সংঘাত সৃষ্টি করতে চায় না।

কিন্তু বাস্তবে তারা ঠিক উল্টো কাজটা করে। এ দুই দেশে মার্কিন সামরিক পদক্ষেপ নিঃসন্দেহে এই অঞ্চলে নতুন অশান্তি সৃষ্টি করছে এবং উত্তেজনা আরও তীব্র করছে।

পূর্বের খবরঅনলাইন মিডিয়ার জন্য আলাদা বিজ্ঞাপন নীতিমালা প্রণয়ন করা হবে: তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী
পরবর্তি খবরসরকারের বিরুদ্ধে লড়াইরত বিদ্রোহীগোষ্ঠী পিপলস ডিফেন্স ফোর্সেস (পিডিএফ) ও কাচিন