আপিলেও প্রার্থীতা টিকল না পাপুলের স্ত্রীর

75

অনলাইন ডেস্ক:

নির্বাচন কমিশনে (ইসি) আপিলেও প্রার্থিতা টিকল না বহুল আলোচিত কুয়েতে মানবপাচার ও অর্থপাচারের দায়ে দণ্ডিত কাজী শহিদ ইসলাম ওরফে পাপুলের স্ত্রী সেলিনা ইসলামের। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে আপিল করেও প্রার্থিতা ফিরে পাননি লক্ষ্মীপুর-২ আসনের স্বতন্ত্র এই প্রার্থী।

 

মঙ্গলবার নির্বাচন কমিশনের আপিল শুনানিতে তার মনোনয়নপত্র নামঞ্জুর করা হয়। সেলিনা ইসলাম সাবেক সংসদ সদস্য এবং কুয়েতে মানব পাচার ও অর্থ পাচারের দায়ে দণ্ডিত মোহাম্মদ শহিদ ইসলাম ওরফে পাপুলের স্ত্রী। তিনি সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্যও।

 

সকাল ১০টায় আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনের মিলনায়তনে তৃতীয় দিনের মতো আপিল শুনানি কার্যক্রম শুরু হয়। আপিল শুনানিতে প্রার্থীদের বক্তব্য শুনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়ালসহ অন্য নির্বাচন কমিশনাররা রায় দিচ্ছেন।

 

এর আগে দুদকের মামলার তথ্য গোপন করার অভিযোগে সেলিনা হোসেনের মনোনয়ন বাতিল করেন সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তা।

 

পরবর্তীতে মনোনয়ন বাতিলের বিরুদ্ধে ইসিতে আপিল করেন এই প্রার্থী। আজ ছিল আপিল শুনানি। তার আইনজীবী জানান, হলফনামায় মামলার তথ্য লিখতে পারিনি। এখন সেটা নিয়ে এসেছি। তবে প্রার্থিতা ফিরে পেতে হাইকোর্টে যাওয়া৷ কথা রয়েছে তার।

পূর্বের খবরশৈত্যপ্রবাহ কাল থেকে, ঘন কুয়াশা থাকবে আরো কিছুদিন
পরবর্তি খবরপাকিস্তানে সামরিক ঘাঁটিতে সশস্ত্র হামলা, নিহত ২৪